Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!.

এনএসআই (NSI) নিয়োগ পরীক্ষা সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্যাবলী- কি পড়বেন? | ejobscircular24

Government - Non Government job circular and news of Bangladesh

এনএসআই (NSI) নিয়োগ পরীক্ষা সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্যাবলী- কি পড়বেন?


এনএসআই নিয়োগ পরীক্ষা সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্যাবলী



●● বাছাই পরীক্ষাঃ
প্রার্থীকে প্রথমে ১০০ নম্বরের বাছাই পরীক্ষা বা প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। প্রিলিমিনারির ১০০ নম্বর পরীক্ষার মানবন্টন নিম্নরূপঃ
১) বাংলা = ১০ নম্বর
২) ইংরেজি = ১০ নম্বর
৩) অংক = ১৫ নম্বর
৪) বাংলাদেশ বিষয়াবলী = ২০ নম্বর
৫) আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী = ১৫ নম্বর
৬) দৈনন্দিন বিজ্ঞান = ১০ নম্বর
৭) কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি = ১০ নম্বর
৮) বুদ্ধিমত্তা যাচাই অভীক্ষা (মানসিক দক্ষতা) = ১০ নম্বর
___________________________
মোট = ১০০ নম্বর



Related Posts:...........

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় National Security Intelligence (NSI)  এর বিগত সালের প্রশ্ন সমাধান

●● লিখিত পরীক্ষাঃ
প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে।
___________________________
লিখিত পরীক্ষায় মোট = ১০০ নম্বর
___________________________
●● কি পড়বেন?

১) প্রিলিমিনারি টেস্টের জন্যঃ বিসিএস এর সিলেবাস অনুসারে আপনার সংগ্রহে থাকা বইগুলো থেকে উপর্যুক্ত বিষয়গুলো পড়ুন। টার্গেট করে জব সলুশান পড়ুন; আগে একবার শেষ করেন। জব সলুশানটা একটু ধীরে ধীরে পড়ুন। ব্রেনে ঢুকান ভাল করে; দ্রুত পড়তে গিয়ে অনেক কিছু ব্রেন থেকে ডিলিট হয়ে যাবে। পড়ার সময় একটা নোটবুক কাছে রাখুন। মনে থাকে না বা অপরিচিত এমন বিদঘুটে কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নগুলো নোট করে রাখুন। ধরে নেন আপনি সর্বোচ্চ ২ মাস সময় পাবেন। উল্লেখ্য, প্রিলিমিনারির প্রশ্নের ধরণটা বিসিএস প্রিলির সিলেবাসের সাথে ৮০ ভাগ মিল আছে। এজন্য আগে ১০ম-৩৬তম বিসিএস প্রিলির প্রশ্ন সমাধান করুন। সাথে নন-ক্যাডার ও অন্যান্য পরীক্ষার প্রশ্নও দেখুন। আর একটা কথা – জব সলুশান থেকে পড়ার সময় খেয়াল করবেন, কোন কোন প্রশ্নপত্রে “প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে………….পরীক্ষা” অথবা “জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা” এমন শিরোনাম আছে; ওগুলোই মূলত এনএসআই-য়ের বিগত বছরের প্রশ্নপত্র।
২) লিখিত পরীক্ষার জন্যঃ যেকোন নন-ক্যাডার নিয়োগ সহায়িকা পড়ুন (প্রফেসরস প্রকাশনীর বই পড়তে পারেন)। অথবা, সিলেবাস অনুসারে বিসিএস রিটেনের বইও দেখতে পারেন।
___________________________
●●লিখিত পরীক্ষার প্রশ্নের ধরণঃ
সহকারী পরিচালক (AD) - জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা (লিখিত প্রশ্ন ২০১৫) ঃ
১। ম্যাথ ২ টা = ১৬ নম্বর
২। বাংলা গল্প = ১০ নম্বর (আংশিক দেওয়া ছিল সেটা শেষ করা)
৩। টীকা (বাংলা ও ইংলিশ) = ১০ নম্বর
৪। গোয়েন্দা সংস্থার নাম = ১০ নম্বর
৫। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেদারল্যান্ড সফর নিয়ে চুক্তি (ইংলিশ) = ৬ নম্বর
৬। জঙ্গিবাদ দমনে সরকারের সফলতা ও কি কি পদক্ষেপ নেওয়া উচিত (বাংলাদেশ) = ১০ নম্বর
৭। রোহিঙ্গ সমস্যা = ১০ নম্বর
৮। সুচির প্রেসিডেন্ট না হওয়ার কারন (ইংলিশ) = ৪ নম্বর
৯। মিয়ানমারের নির্বাচন = ৪ নম্বর
১০। সাইবার ক্রাইম (ইংলিশ) = ১০ নম্বর
১১। ভিআইপির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এন এস আই-এর পরিচালকের ভূমিকা = ১০ নম্বর
___________________________
শুভেচ্ছান্তে,
B. M. Ajgar Ali
BSS & MSS (Economics)
Khulna University
 ------------------------
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় National Security Intelligence (NSI)  এর বিগত সালের প্রশ্ন সমাধান


#প্রশ্ন : লিখিত নিয়ে, ২ বার অভিজ্ঞতা আমার তিক্ত! :-(
. অনেকে লিখিত মানবন্টন নিয়ে চিন্তিত!!!
.

Related post.............

NSI এর প্রিলিমিনারি (MCQ) পরীক্ষার ফল প্রকাশ







নিচের পিকটি #গতবারের লিখিত এর তবে এর আগের বার অন্যরকম ছিলো! চিন্তার বিষয় হলো এই বার আবারো পরিবর্তন এর সম্ভাবনা রয়েছে!!!
.
আগে সিদ্ধান্ত নেন কোন একজামটি দিবেন? উল্লেখ্য - এখানে পসিবিলিটি কিছুটা কম! (পিক : #রাজিব দা )
.
গনিত : গতবার খুবই সাধারণ মানের ছিলো।
সংক্ষিপ্ত ও টিকা : গোয়েন্দা সংস্থা, সংগঠন, বিভিন্ন দেশের সমসাময়িক ঘটনা
NSI রিলেটেড নিয়ে একটি বিশদ লেখা।
.
Collected from Others :
.
This exam result publishes very fast than other government exams result. In Assistant Director post Total 2566 candideats, Telephone Engineer total 24, Assistant Computer Programmer total 20, Field Officer total 283 candidates are seleted for written exam.





 by: আহাম্মেদ ফয়সল ডিজুস








By: Musfik Alam



আগামী ২৪ মার্চ ২০১৭ তারিখে অনুষ্ঠেয় এনএসআই (এডি) লিখিত পরীক্ষার জন্য দেখতে পারেন।
_____________________________
আসুন দেখে নেই বাংলাদেশের বিশেষায়িত সামরিক সংস্থাগুলার হাড়ির খবর -
.
★এনএসআই( ন্যাশনাল সিকউরিটি ইন্টেলিজেন্স):
জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা সংস্থা। ন্যাশনাল সিকউরিটি ইন্টেলিজেন্স। যুগযুগ ধরে এই বেসামরিক সংস্থাটি বাংলাদেশের প্রাইম গোয়েন্দা সংস্থা ছিল। দেশের প্রতিটা জেলায়, প্রতিটা থানায় রয়েছে অফিস। সমস্ত কিছু হয় গোপনে। এমনকি তাদের হেডকোয়ার্টারও পুরোপুরি আন্ডারকাভার।
ধরণ: রাষ্ট্রের নিরাপত্তা ও অখন্ডতা, বাইরের দেশের হুমকির বিষয়গুলি দেশের ভিতরে ট্যাকল করা, কাউন্টার ইন্টেলিজেন্স। গোয়েন্দা তথ্য জোগাড় করে তা বিশ্লেষণ করা ও প্রয়োজন অনুসারে সরকারকে জানানো।
ট্রেনিং: পুরোপুরি গোপনীয়। দেশে ও দেশের বাইরে। তবে, আর্মি, নেভি, এয়ার, ডিজিএফআই’র সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ট্রেনিং হয়, তাদের ফ্যাসিলিটিতে।
আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে খুন করা হল পাক মুক্তমনা ব্লগারকে
গোপনীয়তা: সরাসরি প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে পরিচালিত।
.
★সোয়াট (স্পেশাল উইপন্স অ্যান্ড ট্যাকটিক্স):
আমেরিকার সোয়াট টিমের আদলে, তাদেরই অর্থায়নে, তাদেরই ট্রেনিংয়ে এবং তাদেরই সব ইক্যুইপমেন্টে সজ্জিত হয়ে বাংলাদেশেও যাত্রা শুরু করে তাদেরই সমান আকৃতির একটা সোয়াট টিম। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ স্পেশাল উইপন্স অ্যান্ড ট্যাকটিক্স টিম- সোয়াট।
ধরণ: ছোট্ট টিম, পুরোপুরি উদ্ধার অভিযান কেন্দ্রীক। সোয়াটের ধারণাটা সুন্দর। শুরু আমেরিকায়। যেসব সংস্থায় সশস্ত্র উদ্ধারকাজ দরকার হতে পারে, তেমন সব সংস্থার জন্য একই ধরনের একটা করে টিম গঠন করে দেওয়া হয়। এই টিমগুলির ট্রেনিং একই রকম, সামান্য এদিক সেদিক। কিন্তু তারা থাকবে লোকালাইজড সংস্থার সঙ্গে । যেমন, এফবআই’র নগরভিত্তিক প্রতিটা অফিসে, পুলিশের প্রতিটা বড় ইউনিটে ছোট একটা করে সোয়াট টিম, কোস্টগার্ড, বর্ডারগার্ড, কাস্টমস, ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন- সর্বত্র।
নিয়োগ: খুবই শক্তপোক্ত নিয়োগ হয় এই ফোর্সটায়। শারীরিক হার্ডওয়ার্কের উপর বিশেষ নজর দেওয়া হয়।
আকৃতি: সব সোয়াট টিমই পঁচিশ-পঁয়তাল্লিশজনে সীমাবদ্ধ।
ট্রেনিং: লোকে বলে, ফুড সাপ্লিমেন্ট দিয়ে তাদের ব্যায়ামের পরিমাণ ও সহ্যক্ষমতা বাড়ানো হয়, তারপর এক্সটেন্সিভ এক্সারসাইজ এর মাধ্যমে তৈরি করা হয় মাসলম্যান।
গোপনীয়তা: মনে তো হয় খুব। কারণ, কোন অপারেশনের কথা জানা যায় না, স্ট্রিট ডিউটি (যা মূলত শো অফ) এই দেখা গেছে বাংলাদেশের সোয়াটদের।
কাজের ক্ষেত্র: ডিএমপি কমিশনারের সরাসরি নির্দেশে পরিচালিত।
বিশেষায়িত অস্ত্র: মার্কিন সোয়াট ও মেরিন স্ট্যান্ডার্ডের সব অস্ত্র। সামনে নাকি হামভি জিপও আনা হবে কাজে গতি সঞ্চারের জন্য।
.
★ফরমেশন কম্যান্ডো কোম্প্যানি:
ধরন: দুই থেকে তিনটা প্ল্যাটুন নিয়ে এক কোম্পানি। একজন ক্যাপ্টেন বা মেজরের অধীনে আর্মি ফরমেশনগুলিতে একটা করে কম্যান্ডো কোম্প্যানি থাকার কথা। প্রতি ডিভিশনেই (বা ক্যান্টনমেন্টে) আছে এমন কোম্পানি।
ট্রেনিং: চার থেকে ছয় মাসের অকল্পনীয় ট্রেনিং।
গোপনীয়তা: তেমন কিছু নেই। নামেই যার পরিচয়।
বিশেষায়িত অস্ত্র: টাইপ ফিফটি সিক্সের লাইট ফুলমেটাল ভার্শন (এখানে সবচেয়ে সাধারণ), বিশ্ব কাঁপানো উজি মেশিন পিস্তল ও সাবমেশিনগান, মার্কিন এম ফোর কারবাইন, স্পেশাল ফোর্সেস শর্ট ব্যারেল স্পেশাল এডিশন কারবাইন, কমান্ডো গ্রেনেড-নাইফ-ভেস্ট-এস্কেপ টুলস।
কাজের ক্ষেত্র: সামরিক। শত্রুব্যুহভেদ। শত্রুরেখার পিছনে কাজ। গোপন তথ্য উদ্ধার/ গোপন স্যাবোট্যাজ। স্পেশাল অ্যাসাইন্ড কিলিং। স্পর্শকাতর উদ্ধারকাজ বা শত্রুবাহিনীর মূল কোন একটা পয়েন্ট গুঁড়িয়ে দেওয়া।
.
★সিটিআইবি (কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো):
ধরন: সন্ত্রাস দমন
আরও পড়ুন: আহত পুলিশকর্মীদের দেখতে হাসপাতালে মুখ্যমন্ত্রী
নিয়োগ: ডিজিএফআই থেকে। ডিজিএফআই’র একটা পরিদপ্তর এই উপ-সংস্থা। কিন্তু এর সক্ষমতা ব্যাপক, তাই কোথাও কোথাও একে আলাদাভাবে চিহ্নিত করা হয়।
ট্রেনিং: পৃথিবীর বড় বড় অ্যান্টি টেররিজম অর্গানাইজেশনের সঙ্গে সহযোগিতামূলক আদান-প্রদান হয় ট্রেনিংয়ে।
কাজের ক্ষেত্র: শুধু বড় আয়তনের রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস নিয়ে ডিপকাভার তদন্ত, প্রয়োজনে আরো ডিপ আক্রমণ।
.
★এসএসএফ (স্পেশাল সিকউরিটি ফোর্স):
ধরন: সরকারপ্রধানের নিরাপত্তার বিশেষায়িত বাহিনী। একজন ব্রিগেডিয়ার জেনারেলের অধীনে গঠিত ছিল, বর্তমানে মেজর জেনারেলের অধীনেও কাজ করে।
নিয়োগ: তিন বাহিনী থেকে। অপারেটিভরা সাধারণত ক্যাপ্টেন বা সমমানের পদবী থেকে আসা।
আকৃতি: বলা হয় হাজার আড়াই।
গোপনীয়তা: পুরোপুরি। ফিল্ডের অনেক কাজ বাস্তবায়নে পুলিশ-র‍্যাব এমনকি সেনাবাহিনীও কাজে লাগানো হয়।
কাজের ক্ষেত্র: প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা, গোয়েন্দা নজরদারি, সফর সঙ্গী হওয়া।
বিশেষায়িত অস্ত্র: ইলেক্ট্রনিক জ্যামার ফিফটিন রাউন্ড পিস্তল, স্পেশাল স্নাইপার রাইফেল।
কার্টেসি - নাম না জানা কোন এক অনলাইন পেপার
_______________________
Credit : Ariful Islam
_______________________

#NSI WRITTEN EXAM:
Date: 24/03/2017
Time: 9:00-12:00 hrs
(SMS has been sent to qualified candidates for written exam)

****NSI Result
Assistant director-2566
Telephone engineer-24
Assistant computer programmer-20
Field officer-283
are selected for written exam.


                    ২৪ তারিখ সকালের জনতা ব্যাংকের এক্সাম দিবে নাকি NSI এক্সাম দেবেন  

  সকালে ঘুম থেকে উঠেই দেখি NSI প্রিলি পরীক্ষায় পাস করেছি। কিন্তু মনে বিন্দুমাত্র অনুভূতি হয়নি। কারণ, গতবার ভাইভাও দিয়েছিলাম। ফেসবুকে দেখলাম অনেকেই ২৪ তারিখ সকালের জনতা ব্যাংকের এক্সাম দিবে নাকি NSI এক্সাম দিবে এই নিয়ে বিপদে আছে। আমার ব্যক্তিগত মতামত- যাদের বয়স ২৮ বা ২৮+ এবং এখনও বেকার তারা জনতা ব্যাংকের এক্সাম দিতে পারেন। আর যাদের বয়স এর চেয়ে কম বা কোটা আছে তারাNSI এর জন্য ট্রাই করতে পারেন। জানি NSI এক্সাম অনেকের কাছেই আবেগের। তবে আমাদের উচিত আবেগ নয়, বাস্তবতার নিরিখে সিদ্বান্ত নেয়া। NSI গতবছর ৩১ জনের বিপরীতে ১৭৯ জনকে ভাইভাতে ডেকেছিল। এবার ১৫ জনের বিপরীতে ৫০/৬০ জনের মতো ডাকবে হয়তো। জনতা ব্যাংকে ৮০০ এর উপরে নিবে এবং প্যানেল করবে। এছাড়া অন্যান্য সরকারি ব্যাংকের নিয়োগের কারণে টিকার সম্ভাবনাও বেশি। কারণ, সবাই জনতা ব্যাংকে জয়েন করবে না বরং সিনিয়ির অফিসার ও অন্যান্য ব্যাংকে জয়েন করবে। তাই যাদের বয়স ২৮/২৯ এবং এখনও বেকার তারা NSI এর ৬ টা পোস্টে (কোটা ব্যতীত) এক্সাম দিবে কিনা সে সিদ্বান্ত ভেবে-চিন্তেই নিবে। আর যাদের বয়স কম, তারা সাত-পাঁচ না ভেবে জনতা ব্যাংক ছেড়ে NSI এর এক্সাম দেন। কারণ, আগামী ২/২.৫ বছরের মধ্যে আপনি সরকারি ব্যাংকের এই রকম বড় সার্কুলার অবশ্যই পাবেন। তবু জীবন আপনার, সিদ্বানও আপনার। গতবার NSI রিটেনে কি কি এসেছিল আমার যতটুকু মনে আছে তার উপর ভরসা করে আজ বিকেলে একটা পোস্ট দিব ইন্শা-আল্লাহ।  লিখেছেনঃ Faysal Ahamed

No comments:

Post a Comment

Copyright © ejobscircular24