Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!.

দুই লাখ টাকা ঘুষ: শিক্ষা ভবনে আলোচনায় শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা | ejobscircular24

Government - Non Government job circular and news of Bangladesh

দুই লাখ টাকা ঘুষ: শিক্ষা ভবনে আলোচনায় শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. এস এম ওয়াহিদুজ্জামানকে ২ লাখ টাকা ঘুষের প্রস্তাব দিয়ে শিক্ষা ক্যাডারে তোলপাড় সৃষ্টি করেছেন বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের এক কর্মকর্তা। কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের ইংরেজির এই শিক্ষক ঘুষ দিয়ে সাতক্ষীরার তালা সরকারি কলেজে তার বদলির আদেশটি বাতিল করে যশোরের এম এম কলেজে বদলি হতে চেয়েছিলেন।

শিক্ষা বিষয়ক দেশের একমাত্র জাতীয় পত্রিকার অনুসন্ধানে জানা যায়, মহাপরিচালককে ঘুষের প্রস্তাব দেয়ার আগে তিনি অধিদপ্তরের সরকারি কলেজ শাখার একজন সহকারি পরিচালককে ঘুষের প্রস্তাব দেন। ক্ষিপ্ত হয়ে ওই শিক্ষককে সহকারি পরিচালকের কক্ষ থেকে বের করে দেন। ঘুষ প্রস্তাবের ঘটনাটি তাৎক্ষণিক জানানো হয় মহাপরিচালকে। ২১ ডিসেম্বর সকালে ঘুষের ওই ঘটনা ঘটান তিনি। বিকেলে রমজান নামের একজন দালালকে তিন লাখ টাকা দেন বদলি ইচ্ছুক ওই শিক্ষক। দালাল রমজান মহাপরিচালকের সঙ্গে সাক্ষাত করে দুই লাখ টাকার কথা বলেন বলে জানা যায়।

এদিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে একজন কর্মকর্তা মহাপরিচালককে অনুরোধ করেন ওই শিক্ষককে যশোর এম এম কলেজে বদলির জন্য। মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তাকে মহাপরিচালক জানান যে, বদলি ইচ্ছুক ওই ইংরেজি শিক্ষক দুই লাখ টাকা ঘুষ প্রস্তাব করেছেন। বোকা বনে যান মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা। তিনি মহাপরিচালককে অনুরোধ করেন ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে।

তবে, গতকাল ২১ ডিসেম্বর ওই শিক্ষককে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ থেকে তালা সরকারি কলেজে বদলির আদেশ বাতিল করে তার কাঙ্খিত যশোর এম এম কলেজে বদলির আদেশ জারি করেন। আদেশের কপি শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে।

আজ ২২ ডিসেম্বর দুপুরে দৈনিকশিক্ষার এক প্রশ্নের জবাবে মহাপরিচালক বলেন, “ঘুষের প্রস্তাব করেছে সহকারি পরিচালককে। তবে, তার বদলিটা হয়েছে ঘুষ ছাড়াই।”

ঘুষ দিতে চাওয়ার অপরাধে প্রথম শ্রেণির একজন ক্যাডার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিলেন না, এমন প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে যান মহাপরিচালক।

আপনার (মহাপরিচালক) নাম করে রমজান দুই লাখ টাকা নিয়ে নিল, এ জন্য রমজানের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেবেন কী-না এমন প্রশ্নের জবাবে মহাপরিচালক বলেন, “রমজান অপর একটি অফিসের চতুর্থ শ্রে্ণির কর্মচারী। তবে, আনসারকে বলে দিব রমজান যেন আর শিক্ষা ভবনে ঢুকতে না পারে।

রমজানকে ঘুষ দিয়ে বদলি হওয়া ইংরেজিও ওই সহকারি শিক্ষক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে পড়াশোনা শেষ প্রতিযোগীমূলক পরীক্ষা দিয়ে বি সি এস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারভুক্ত সরকারি কলেজের ইংরেজি শিক্ষক হয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে ছাত্রলীগ মনোভাবাপন্ন ছিলেন বলে জানা যায়। দেড় বছর আগে তিনি পদোন্নতি পেয়ে সহকারি অধ্যাপক হন।

সহকারি পরিচালক মো: দেলোয়ার হোসেন দৈনিকশিক্ষাকে বলেনে, “আমার যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়া কোনো বদলির ফাইল তুলি না, যা করা হয়েছে তা সবই মহাপরিচালেকের আদেশ অনুযায়ী।”

ঘুষ দেয়ার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে দেলোয়ার হোসেন বলেন, “সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার আগে আমার ইমিডিয়েট বসের অনুমোদন নিতে হবে।”


No comments:

Post a Comment

Copyright © ejobscircular24